অভাবগ্রস্ত এবং অক্ষমতা হতে পরিত্রাণ এর উপায় কি কি জেনে নিন

হযরত ইবনে ওমর রাদিয়াল্লাহু তা’আলা আনহু বর্ণনা করেন একসময় জনৈক ব্যক্তি হুজুরে আকরাম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের খেদমতে আরজ করলেন ইয়া রসুলাল্লাহ দুনিয়াকে পরিত্যাগ করেছে এবং আমি রিক্ত হস্তে অভাবগ্রস্ত এবং অক্ষম হয়ে পড়েছি আমার পরিত্রাণের কোন উপায় আছে কি এত দূরে হুযুর সাল্লাল্লাহু ওয়া সাল্লাম বললেন তুমি কোথায় আছো কি হলো কেনা পরলোকে তোমার কাছে কি চালাতে মালাইকা অর্থাৎ ফেরেশতাগণের দোয়া এবং তাসবিহে খালায়েক যার বদৌলতে ফেরেশতাগণকে দিছি প্রদান করা হয় তা তোমার কাছ থেকে কোথায় গেল।

তুমি জানো না সে ব্যক্তি আরজ করিলেন

যে দোয়া ও প্রার্থনার বরকতের ফেরেশতাকুল এবং মানবজাতি শস্য জীবিকাপ্রাপ্ত হয়ে থাকে তা কি তুমি জানো না সে ব্যক্তি আরজ করিলেন সেই দোয়া করি আল্লাহ আমিতো জানিনা হুযুর সাল্লাল্লাহু সাল্লাম সুবহানাল্লাহি বিহামদিহি সুবহানাল্লাহিল আযীম ওয়া বিহামদিহি আস্তাগফিরুল্লাহ অর্থ আল্লাহর পবিত্রতা বর্ণনা করছি এবং তার প্রশংসায় তাকে স্মরণ করছি মহান আল্লাহ তাআলার পবিত্রতা বর্ণনা করছি এবং তার প্রশংসার বর্ণনার সাথে আল্লাহ তাআলার নিকট ক্ষমা প্রার্থনা করছি।

অভাবগ্রস্ত এবং অক্ষমতা হতে পরিত্রাণ এর উপায় কি কি জেনে নিন

এই দোয়া প্রত্যেক ফজরের নামাজের আগে কিংবা পরে একশতবার করে পড়তে হবে হেঁটে হেঁটে বা এদিক-সেদিক দুনিয়া বৃদ্ধি নিয়ে পড়া যাবে না এক জায়গাতে বসে পড়তে হবে এবং মনোযোগের সাথে পড়তে হবে আপনি যা করছেন তা যেন আপনার অন্তরে এবং কলমে নাড়া দেয় সেই দিকটা লক্ষ করতে হবে মনে রাখবেন যদি আল্লাহ পাকের কাছে আপনি দোয়ার মাধ্যমে সঠিকভাবে তালাশ করতে পারেন তাহলে সংসার দুনিয়া আপনা আপনি আপনার দিকে ফিরবে।

পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ প্রতিবন্ধী কে

অর্থাৎ দুনিয়া আপনার কাছে হেয় ও লাঞ্ছিত অবস্থায় ধরা দেবে এবং এতদ্ভিন্ন আল্লাহ তা’আলা এর এক একটি শব্দ হতে. একজন ফেরেশতা সৃষ্টি করে কেয়ামত দিবস পর্যন্ত একটা ছবি পাঠিয়ে নিযুক্ত করে দেবেন এবং উহার সমুদয় স্বভাব আপনি পাবেন অতঃপর ঐ চলে গেল এবং দীর্ঘদিন পর্যন্ত ফিরে এল না এরপরের বিদেশি আরজ করল ইয়ারাসুলাল্লা দুনিয়া আমার কাছে এত বেশি পরিমাণে এসেছে যে তাকে কোথায় রাখবো আমি জানি না আল্লাহ একবার আমার সাথে বুজুর্গ গান ওয়ালা হাওলা ওয়ালা কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহিল আলিউল আজিম পাঠ করেছেন।

হাদিসে পার্কের মধ্যে আছে এটি সকল গুনাহের মাগফিরাত এবং রিজিক বৃদ্ধির সহায়ক হবে এর মূল বক্তব্য হচ্ছে স্থাপন ফাহাদ বলাবাহুল্য গুনাহের কারণে মানুষের রিজিক সংকীর্ণতা এবং সকল প্রকার দুঃখ-কষ্ট বালা-মুসিবত অপারেশনের কারণে নিয়মিত সংসারে কোন অভাব অনটন থাকতেই পারে না এটা একটা মহামূল্যবান বহু পরীক্ষিত দোয়া ও আমল সমূহ কল্যাণ ও বরকতের আল্লাহপাকের অসংখ্য-অগণিত. লাভ করে আসছেন তাই আপনাদের কাছে একটা অনুরোধ থাকবে।

প্রতিবন্ধকতার কারণ বিকলাঙ্গ কি

ফজরের নামাজটা পড়বেন এবং এই দোয়া একশতবার এর মধ্যে সীমাবদ্ধ না রেখে বরং উঠতে-বসতে চলতে-ফিরতে বেশি করে পাঠ করবেন যেন আমল দ্বারা আমরা দুনিয়া ও আখেরাতের সকল নামসমূহ লাভ করে মহা সৌভাগ্যবান’ হতে পারি আর বেশি বেশি স্থাপনের মাধ্যমে আমরা আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীনের কাছে সাহায্য চাইতে থাকব কারণ ইস্তেগফার এর মাধ্যমে গুনাহ মাফ হয়।

অভাবগ্রস্ত এবং অক্ষমতা হতে পরিত্রাণ এর উপায় কি কি জেনে নিন

আপনার দোয়া কবুলের জন্য প্রস্তুত হয়ে যান আর দোয়া কবুল হলেই তো রিজিকের প্রশস্ততা হবে আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন আমাদেরকে হালাল খাদ্য ও নিয়মিত নামাজ পড়ার তৌফিক দান করুন কেননা বেনামাজির কোন আমল বা দোয়ায় আল্লাহ কবুল করেন না যারা হারাম ইনকাম করে অথবা হারাম খায় তাদের কোন দোয়া আল্লাহ তাআলার কাছে কবুল হয় না আল্লাহ যেন আমাদেরকে সিরাতাল মুস্তাকিম দান করেন আমিন.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *