এই মুভি সম্পর্কে আমার ডেডিকেশন

টাইম ট্রাভেল নিয়ে অস্ট্রেলিয়ান সেরা একটি সাই-ফাই থ্রিলার মুভি।এই মুভি সম্পর্কে আমার ডেডিকেশন এমন ছিল যে যেকরেই হোক আমি এর প্যাঁচ খুলেই ছাড়বো।আগে দেখার পর আমি খাতা-কলমে রাফ করে নিয়েছিলাম।আজকে রিভিউ দেওয়ার জন্য আবার নতুন করে রাফ করে ফেললাম।এটা এমন এক মুভি আপনি খালি মাথায় চিন্তা করলে তালকানা হয়ে যাবে।এতো মারাত্মক জটিল একটা মুভি! এই মুভির স্পয়লার কেমনে দেয় আমার জানা নেই।স্পয়লার দিতে গেলেই বিপত্তি কারণ মুভির কাহিণী সাজানো হয়েছে হাইলি নন-লিনিয়ারভাবে।তাই সরাসরি explaination এ চলে যাই।

আপনি বর্তমান থেকে অতীতে ৫৩ বছর

যারা মুভিটি দেখেননি তারা এটা পড়ে মুভির মজা নষ্ট করিয়েন না। মুভির প্রধান চরিত্র হচ্ছে Jane, John, Barkeep আর Fizzle Bomber.কিন্তু এরা সবাই একই ব্যক্তি।চারজনই Bootstrap Paradox এ ফেঁসে গিয়েছিল।Bootstrap Paradox এ আপনি বর্তমান থেকে অতীতে ৫৩ বছর এবং ভবিষ্যতের ৫৩ বছরের যেকোন সময়ে টাইম ট্রাভেল করতে পারেন।এক্ষেত্রে অতীত এবং ভবিষ্যতে দুটি ইনফিনিটি লুপ তৈরি হবে।Bootstrap Paradox এ একটা ঘটনার অরিজিন বা সূচনা Exact কোন স্থান থেকে শুরু হয় সেটা নিরূপণ করা প্রায় অনিশ্চিত। এই মুভিতে গুরুত্বপূর্ণ সালগুলো হচ্ছে ১৯৪৫,১৯৬৩,১৯৭০,১৯৭৫,১৯৮৫ এবং ১৯৯২।পুরো মুভিতে এই সালগুলোতেই বারবার ঘুরে-ফিরে টাইম ট্রাভেল করা হয়েছে। আমি আগেই বলেছি মুভির চারটি চরিত্র একই ব্যক্তি।

sdf

মেসেঞ্জার একাউন্ট খোলার নিয়ম। দেখুন কিভাবে একটি ম্যাসেঞ্জার অ্যাকাউন্ট করতে হয়

আসুন Jane সম্পর্কে কিছু জেনে নেই- Jane কে কেউ ১৯৪৫ সালে একটি অনাথআশ্রমে শিশু অবস্থায় ফেলে যায়।সেখানে Jane ধীরে ধীরে বড় হতে থাকে।Jane এর একটা মারাত্মক বায়োলজিক্যাল সমস্যা ছিল।সেটা হল তার শরীরে একই সাথে নারী এবং পুরুষের অর্গান ছিল।Jane এর বড় হয়ে উঠা,Space এ চাকুরী করার ইচ্ছা,অজ্ঞাত এক ব্যক্তির সাথে প্রেম হওয়া,Pregnant হওয়া,বাচ্চা জন্ম দেওয়া এগুলো ছিল সবই ১৯৬৩ সালের ঘটনা।বাচ্চা জন্ম দেওয়ার সময় ডাক্তাররা Jane এর ফিমেইল অর্গান কেটে ফেলে।যার ফলে সে আস্তে আস্তে পুরুষ হয়ে যায়।সেই পুরুষই হচ্ছে John. John সম্পর্কে কিছু কথা- Jane থেকে John হওয়ার পর সে রাইটার হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে।An Unmarried Mother নামে লিখা লিখে।তারপর মাঝে কিছু ঘটনা ঘটে।

যেটা পরে বলবো। John সেই ব্যুরোর Temporal Agent হয়ে যায়।যে ব্যুরোর কাজ ছিল টেরোরিস্টদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো।যেমনটা John আর Barkeep দুজনে Fizzle Bomber কে রুখতে চেয়েছিল।কিন্তু প্রকৃতপক্ষে এরা ৩ জন ভিন্ন ভিন্ন সময়ে ট্রাভেল করা একই ব্যক্তি। Barkeep সম্পর্কে কিছু বলি- Barkepp ও হচ্ছে সেই ব্যুরোর একজন Agent.তার জীবনের মিশন ছিল Fizzle Bomber এর বোমা বিস্ফোরণ থেকে মানুষকে বাঁচানো। Fizzle Bomber এর কাজই হচ্ছে গুরুত্বপূর্ণ শহরে বোমা বিস্ফোরণ করা।সে দেখতে হুবুহু Barkeep এর মত কিন্তু বয়স্ক।সেও টাইম ট্রাভেল যন্ত্র দিয়ে বিভিন্ন সময়ে হাজির হতো আর বোমা বিস্ফোরণ করে চলে যেত।

 সালে একটি অনাথআশ্রমে শিশু অবস্থায় ফেলে যায়

মুভির প্যাঁচ খোলার চেষ্টা করি- মুভির শুরুতে দেখা যায় একজন বোমা বিস্ফোরণ করতে এসেছে।সে ছিল Fizzle Bomber.আরেকজন এসেছে বোমা ডিফিউজ করতে।সে ছিল John.কিন্তু বোমা ডিফিউজ করতে গিয়ে তার মুখ পুড়ে যায়।তখন একজন এসে তাকে টাইম ট্রাভেলের যন্ত্রটি এগিয়ে দেয়।যে এগিয়ে দিতে এসেছিল সে ছিল Barkeep.এই ঘটনাটি ছিল ১৯৭০ সালের।আর তিনজনই একই ব্যক্তি ছিল কিন্তু তারা এসেছে ভিন্ন ভিন্ন সময় থেকে। John এসেছিল ১৯৯২ সাল থেকে Temporal Agent হওয়ার পর।পোড়া মুখ নিয়ে সে আবার ১৯৯২ সালে ফিরে যায়।তারপর তার মুখ হুবুহু Barkeep এর মত হয়।তাই বলা যায় John থেকে Barkeep হওয়ার সময়টা ছিল ১৯৯২।

asdf

আবার এই John ই Jane থেকে John হয়েছিল ১৯৬৩ সালে।আরেকটা বিষয় বলে রাখি এই টাইম ট্রাভেল করার যন্ত্রটি সেই ব্যুরো বা মহাপরিচালক সংস্থা থেকেই তৈরি হতো।সেখানকার সব এজেন্টরা এই যন্ত্র ইউজ করতো। John থেকে Barkeep হওয়ার পর সে তার শেষ একটা মিশনে নামতে চায়।সেটা হল ১৯৭৫ সালের নিউনিউর্কে ভয়ংকর বোমা হামলা প্রতিহত করা যেটা Fizzle Bomber ঘটাবে।সেজন্য তাকে ১৯৯২ থেকে ১৯৭৫ মানে অতীতে যেতে হবে।কিন্তু Barkeep আগে ১৯৭০ সালে যায়।সেখানে তার সেই John এর সাথে দেখা হয়।যে ১৯৬৩ সালে Jane থেকে John হয়ে গিয়েছিল।

কে নারী থেকে পুরুষ হওয়ার গল্প বলতে থাকে,তাকে Pregnant করে দিয়ে পালিয়ে যাওয়া লোকটির কথা বলতে থাকে।পুরো ঘটনা কিন্তু Barkeep আগে থেকেই জানে।কারণ এটা ছিল তার নিজেরই গল্প। John কে Barkeep আসল ঘটনা বুঝানোর জন্য টাইম ট্রাভেল করে ১৯৬৩ সালে নিয়ে যায়।আর এটাও বলে যে John কে যে প্রতারিত করেছে তাকে অতীতে মানে ১৯৬৩ সালে গিয়ে শাস্তি দিবে।John সেখানে গিয়ে তার আগের নারীরূপী Jane কে দেখতে পায়।আর বুঝতে পারে Jane এর সাথে স্বয়ং তারই রিলেশন হয়েছিল।

ভয়ংকর বোমা হামলা প্রতিহত করা যেটা

আর বাচ্চাটি হয়েছিল তাদের দুজনেট জন্যই।তখন John সবটা বুঝতে পেরে Jane কে ছেড়ে যেতে যায়না।এসব ঘটনার মাঝে Barkeep ১৯৬৩ সাল থেকে ১৯৭০ সালে আবার ফিরে যায় যেটা মুভির প্রথম অংশটি ছিল।সেখানকার ফাইট শেষে Barkeep আবার ১৯৬৩ সালে চলে আসে। ১৯৬৩ সালে John আর Jane এর যে বাচ্চাটি হয় Barkeep তাকে চুরি করে ১৯৪৫ সালে নিয়ে গিয়ে একটা অনাথআশ্রমে রেখে আসে।সেই বাচ্চাটি ছিল আসলে শিশু Jane.নিজের সাথে নিজের রিলেশনে নিজেই জন্ম নিয়েছিল Jane.যেহেতু John আর Jane একই entity ছিল তাই তাদের বাচ্চার সেই বায়োলজিক্যাল সমস্যাটা হয়।

এখানে টাইম লেয়ারের ভিতরে টাইম লেয়ার। যায়হোক Barkeep শিশু Jane কে রেখে আবার ১৯৬৩ সালে ফিরে আসে।সেখানে এসে দেখতে পায় John আর Jane একটি বেঞ্চে বসে আছে।John তখন Barkeep কে দেখে বুঝতে পারে যে Barkeep আগে থেকেই সব জানতো।John নিজেই সেই প্রতারক ছিল।তাই এবার Jane কে ছেড়ে John চলে যেতে চায়না।কিন্তু Barkeep তখন John কে বুঝায় তাদের সামনে আরো বহুত কাজ বাকি আছে।তখন টাইম ট্রাভেল করে দুজনে ১৯৮৫ সালে চলে যায়।সেখান থেকে ৭ বছরে মানে ১৯৯২ সালে John একজন পরিপূর্ণ Temporal Agent এ পরিণত হয়।

সেই ব্যুরোর এজেন্ট হতে সম্মতি

এদিকে Barkeep ১৯৮৫ সাল থেকে ১৯৭৫ সালে ট্রাভেল করে যেটা ছিল তার অবসরের সময় এবং John এর জন্য একটা রেকর্ডিং রেখে যায় যাতে John সেই ব্যুরোর এজেন্ট হতে সম্মতি দেয়।Barkeep ১৯৭৫ সালে তার টাইম ট্রাভেল যন্ত্রটি নষ্ট করে দিতে চায়।কিন্তু পারেনা।পরে Barkeep তার বস রবার্টসন এর থেকে একটা ক্লু পায়।Barkeep ১৯৭৫ সালেই Fizzle Bomber কে খুঁজে পায় যে কিনা নিউইয়র্কে বিস্ফোরণ ঘটাবে।Barkeep তাকে মেরে ফেলে এবং সেই নিজেই আবার সেই Fizzle Bomber এ পরিণত হয়।

মেসেঞ্জার গ্রুপ খোলার নিয়ম খুব সহজে ও দ্রুত মেসেঞ্জার গ্রুপ তৈরি করুন

আগেই বলেছি Fizzle Bomber ছিল হুবহু Barkeep এর মত দেখতে।আর এটা যেহেতু একটা টাইম লুপ তাই Fizzle একেবারে মরবে না।Barkeep ই পরে অতিরিক্ত টাইম ট্রাভেল করার কারণে অবসেশন আর মানসিক চাপে Fizzle Bomber হয়ে যায়।আর নিজেই নিউইয়র্কে বিস্ফোরণ ঘটায়। এভাবে পুরো লুপ চলতে থাকে।কিভাবে কি ঘটবে সবটাই ছিল পূর্বনির্ধারিত।কিন্তু এই লুপের অরিজিন কোনটা ছিল সেটা নির্ধারণ করা প্রায় অসম্ভব কারণ এটা ছিল Bootstrap Paradox.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *