বেয়াদবি করবেন না ১০ টাকার নোটে আরবি লিখাটির

যদি প্রশ্ন করা হয় আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এবং মূল্যবান আমল  কোনটি।  তাহলে এক কথায় বলতে হবে আল্লাহ আল্লাহু আকবার। একটি হচ্ছে আল্লাহ পাকের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এবং জাতি নাম।  আল্লাহপাকের আরো নিরান্নব্বইটি সিফাতি নাম রয়েছে।  কিন্তু সকল নাম ছাপিয়ে মূল্যবান নামই হচ্ছে  আল্লাহু আকবর।

বেয়াদবি করবেন না ১০ টাকার নোটে আরবি লিখাটির

আল্লাহ মহান এই লেখাটি রয়েছে বাংলাদেশের দশ টাকার নোটে।  আরবিতে ছোট্ট করে হয়তো অনেকে খেয়াল করিনি।  টাকাটা বড় কথা নয় আল্লাহর নামের পবিত্রতা রক্ষা করুন।  প্রতিদিন কত নাপাক এবং অপবিত্রতার সাথে উক্ত স্থানে স্পর্শ করা হচ্ছে। মাছ বিক্রেতা থেকে শুরু করে মুদি দোকানদার কত জনিত এই টাকাটা ব্যবহার করছেন।

বেয়াদবি করবেন না ১০ টাকার নোটে আরবি লিখাটির

কিন্তু পবিত্র হাতে কি এই টাকাটা স্পর্শ করছি নাপাক অপবিত্রতার সাথে উক্ত স্থানে স্পর্শ করছি। প্যান্টের পকেটে রাখার সময় পকেটের পবিত্রতা সম্পর্কে ও খেয়াল রাখা উচিত।  এক কথায় এই পবিত্র নামের সম্মানহানি হয় এমন ভাবে টাকাটা ব্যবহার থেকে সতর্ক থাকতে হবে।  কারণ এটি আল্লাহপাকের কোন সিফাতি নাম নয় এটি হচ্ছে আল্লাহ পাকের সবচেয়ে মূল্যবান এবং জাতি নাম।

আর একমাত্র নাম যে নামে এক কথায় মহান সৃষ্টিকর্তা আল্লাহ তাআলার পরিচয় বহন করে।  আর তা হচ্ছে আল্লাহ আনন্দ একজন প্রশ্ন করেছেন আল্লাহ লেখা লকেট গলায় থাকলে বাথরুমে যাওয়া যাবে কি।  বিশিষ্ট আলেম ডঃ মোঃ সাইফুল্লাহ এই প্রশ্নের উত্তরে বলেছেন না।  এই লোক নিয়ে বাথরুমে যাওয়াটা যায় যিনি উচিত নয়।

৫০০ টাকার নোটে কিসের ছবি থাকে

কারণ এতে আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের নাম লেখা আছে।  চেষ্টা করবেন এটাকে বাইরে কোথাও রেখে যাওয়ার জন্য যদি দেখেন যে এমন কোন টয়লেটে ভাবছেন বা এমন জায়গায় যাচ্ছেন যে বাইরে রেখে যাওয়ার সুযোগ নেই।  তাহলে চেষ্টা করবেন খুলে এটাকে হেফাজতে কোথাও রেখে যাওয়া যায় কিনা।  যেমন পকেট এ অথবা ব্যাগের ভেতর।  কারণ আল্লাহ রব্বুল আলামীনের জাতের সত্তার সবচেয়ে শ্রেষ্ঠ এবং সম্মানিত নাম হচ্ছে আল্লাহ।

সুতরাং এটাকে কোনভাবে অপমানিত করা কোনোভাবেই অবমাননা করা ঈমানদার ব্যক্তিদের উচিত হবে না এবং এর দিকে লক্ষ রাখা উচিত যেন কোনোভাবেই ভুল গুলো আমাদের না হয়।  কিন্তু কোন কোন বিষয় আছে যেগুলো কোনো কোনো ক্ষেত্রে সম্ভব নয় যেমন আপনি বাজারে গেছে এখন আপনার টয়লেটে যেতে হবে পারছেন না উপায় নেই।

এখন সেটি কোথায় রাখবেন এ ধরনের পরিস্থিতিতে আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের কাছে ইস্তেগফার করতে হবে ক্ষমা প্রার্থনা করতে হবে কারণ যখন সম্ভব নয় তখন আল্লাহ সুবাহানাহু তায়ালা তাঁর বান্দাদের ক্ষমা করবেন।  অন্যদিকে এই লকেট ঝোলানো গাড়িতে আল্লাহ মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু ওয়া সাল্লাম এর নাম ঝোলানো অনেক সময় হলিউড ঝুলিয়ে রাখা হয় এ কাজগুলো শুদ্ধ নয় সুন্দর নয় বরং এগুলো আবেগ।

২০০০ টাকার নোটে কিসের ছবি আছে

কিন্তু এই আবেগ কে উপেক্ষা করা যায় না এটি খুব কঠিন বিষয় কারণ একজনের আবেগ আছে যে আমি আল্লাহ শব্দটি ঝুলিয়ে রাখবো এক্ষেত্রে শরীয়তের বিধান হলো যেখানে আল্লাহ শব্দটি ব্যবহার করলে অবমাননার আশঙ্কা থেকে যায় সেখানে পরিহার করা ওয়াজিব হবে।  এগুলো আবেগের বিষয় ধর্মীয় কোনো বিধান নয় এবং গভীরভাবে চিন্তা করতে গেলে এগুলো ব্যবহার না করাটাই উত্তম।

কারণ আপনি গাড়ির ভিতরে আল্লাহু আকবার ঝুলিয়ে রেখেছেন আর আপনার গাড়ির সাউন্ড বক্সে মাইকেল জ্যাকসন অথবা পশ্চিমা সংস্কৃতির কোন গান চলছে।  কিন্তু মানুষের আবেগ থাকার কারণে হয়তো অনেকে মনে করবেন আমি আল্লাহ শব্দ টা লাগাতে চাইছি।  আর অন্যজনের বলবেন লাগানো যাবেনা তখন বিষয়টা মানুষ অন্যভাবে বোঝার চেষ্টা করবে।

কিন্তু শরীর বিধান খুবই স্পষ্ট আল্লাহর নামের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয় আল্লাহর বিধানের মধ্যে সীমাবদ্ধ ইসলাম। আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের আনুগত্য ও তার জিকির সবকিছুর জন্য নির্দেশনা দিয়েছে এবং পদ্ধতি জানিয়ে দিয়েছে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাই সাল্লাম আল্লাহর জিকিরের কথা বলেছেন।

১০ টাকার নোটে কোন মসজিদের ছবি

সুবহানাল্লাহ আলহামদুলিল্লাহ আল্লাহু আকবার কিন্তু রাসূল সাল্লাল্লাহু সাল্লাম একথা বলেন নাই যে আল্লাহর স্মরণের জন্য তোমরা এগুলো রকেট তৈরি করে বুকে ঝুলিয়ে রাখ অথবা গাড়িতে ঝুলাও অথবা বাসার দেয়ালে বড় ওয়ালপেপার করো অথবা যেখানে যেখানে তোমার ভালো লাগে।  শুধু এই নাম দিয়ে পুড়িয়ে ফেলো এমন কোনো একটি নির্দেশনা ও কোরান-হাদিস কোথাও নেই।

বেয়াদবি করবেন না ১০ টাকার নোটে আরবি লিখাটির

তাহলে বুঝা গেল যে এই নামগুলো ঘরে ঝুলানো থেকেও আপনার দিলে গেছে নেওয়াটাই গুরুত্বপূর্ণ এর নামের উপরে পরিপূর্ণ বিশেষ দিনে আল্লাহপাকের নিষিদ্ধ কাজ থেকে দূরে পড়া এবং আল্লাহ পাকের পছন্দনীয় কাজের পথে এগুলোই হচ্ছে সবচেয়ে বড় সফলতা।  এগুলো যদি সত্যিকার অর্থে আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের স্মরণ এর জন্য উত্তম কাজ হতো যার মধ্যে মানুষের কল্লান নিহিত রয়েছে।

অথবা যেটা খুব ভালো কাজ হতে পারে তাহলে নবী সাল্লাল্লাহু আলাই সাল্লাম অবশ্যই সাহাবীদের বলতেন,  যে তোমরা এই কাজ করো ।  এই নির্দেশনা অবশ্যই থাকতো কারণ কেয়ামত পর্যন্ত যে ভাল কাজ হবে।  সেগুলো নির্দেশনা আল্লাহর নবী সাল্লাল্লাহু সালাম দিয়ে গেছেন।  তাই সে ক্ষেত্রে আমাদের আবেগ টা একটু সংযত করতে হবে যদি আমরা আবেগের সঙ্গে নিজেদের বিবেককে একটু খাটাই।

পুরাতন ৫০০ টাকার নোট

তাহলে বিষয়টি উপলব্ধি করতে সহজ হবে।  তাই দশ টাকার নোট ব্যবহারের ক্ষেত্রে একই ধরনের চিন্তা আমাদের মনে আনতে হবে।  আর তা হচ্ছে এই নোটটি যতটুকু সম্ভব ভদ্রতার সাথে এবং এর যথাযথ সম্মান প্রদর্শন করে আল্লাহর নামের পবিত্রতা রক্ষা করে।  নাপাকি এবং অপবিত্রতা থেকে দূরে থেকে ব্যবহার করতে হবে।

সম্ভব হলে মানিব্যাগের দশ টাকার নোট খুব বেশি না রাখাটাই ভালো একান্ত রাখতে যদি হয় তাহলে আপনার মানিব্যাগটি পবিত্র কিনা নিশ্চিত হয়ে নিন এবং আপনি যে পোশাক পরিধান করেছেন সেটি ও পবিত্র হওয়া প্রয়োজন।  “আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন আমাদের সবাইকে সহি বুঝ দান করুন আমীন”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *